Close

সিলেটের বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষদের পাশে মানবতার ফেরিওয়ালারা

Photo Source – Internet

আসসালামু আলাইকুম । কেমন আছেন সবাই? আশা করি আল্লাহর রহমতে সবাই ভালো আছেন।

 

কিন্তু সিলেটের ভয়াবহ বন্যায় বাংলাদেশ সহ দেশের মানুষ খুব বেশি ভালো নেই।

 

গত ১১ জুন থেকে শুরু হওয়া ভারি বৃষ্টিপাতের কারণে এবং ভারতের আসাম, মেঘালয় রাজ্যের ও চিরপুঞ্জির পাহারি ঢলে সিলেটের সুনামগঞ্জ সহ পুরো সিলেটে ভয়াবহ বন্যা শুরু হয়। প্রতিদিনই বন্যার পানি বিপদসীমার ওপরে অবস্থান করে ও পুরো সিলেটে কে পানির নিচে তলিয়ে ফেলে৷ স্কুল – কলেজ, মসজিদ – মাদ্রাসা, হাসপাতাল সহ প্রায় সব জায়গায়তেই গলা পর্যন্ত পানি উঠে যায়।

 

ভেসে যায় অসংখ্য ঘর-বাড়ী, পশুপাখি, ফসলীজমি সহ সকল কিছু। জীবন যুদ্ধে নিজেকে বাচিয়ে রাখার জন্য সব রেখেই অনেকে আশ্রয়কেন্দ্রে আসতে থাকে। অনেকে আটকা পরে যায়। শিশু সহ বৃদ্ধ মানুষ ও চরম কষ্টে নিজেকে বাচিয়ে রাখার জন্য চেষ্টা করে যায়। অসংখ্য মানুষ নিতহ হন।

 

স্কুলে যাওয়ার সময় পানিতে পরে ভাই – বোনের মৃত্যুর খবর ও পাওয়া যায়।

 

বিদ্যুৎ কেন্দ্রে পানি উঠার জন্য পুরো শহরে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পরে৷ খাবারের দাম হয়ে যায় আকাশচুম্বী ।

সবকিছু পানিতে তলিয়ে যাওয়ার জন্য বিশুদ্ধ পানির সংকট দেখা দেয় ও অনেকে না খেয়ে বেঁচে থাকার লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে ।

 

সিলেটে বাসীর এমন দূরাবস্থার দিনে পাশে দাড়িয়েছ হাজারো মানুষ । দিনরাত নিরলস পরিশ্রম করে তাদের উদ্ধার কার্য পরিচালনা করার পাশাপাশি তাদের খাবারের ব্যবস্থা করে যাচ্ছেন তাদের কে জানাই সেলুট। সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী সহ বিভিন্ন ভলেন্টিয়াররা এবং রেইস কিউ টিম সবসময় তাদের কাজ করে যাচ্ছে। তবে আমাদের দেশের কিছু ইউটিউবারা সত্যি রিয়েল হিরোর মতো পরিচয় দিয়েছে।

 

কুড়েঘর বেন্ডের মালিক তাশরিফ খান বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ মানুষদের পাশে নিজেকে এখন পর্যন্ত নিয়জিত রেখেছেন৷ তিনি বলেন অসহায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষদের এভাবে ফেলে রেখে ফিরতে চান না। ২ দিনে তিনি ১৬ লাখ টাকা অনুদান তুলে সিলেটের সুনামগঞ্জ সহ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষদের জন্য প্রতিদিন খাবারের ব্যবস্থা করে যাচ্ছেন ।

 

বেরিস্টার সুমন ভাই ১ দিনে ৭০ লাখ টাকা অনুদান পায় বন্যায় মানুষদের সাহায্য করতে। তরুণ ইউটিউবার  হৃদয়  আহামেদ শান্ত, ফ্রী মোশন ( ফিরোজ ভাই) অসংখ্য ইউটিউবার সহ অনেক সাধারণ মানুষ সাহায্য করে যাচ্ছে ।

তৌহিদ আফ্রিদি ভাই ১০ লাখ টাকা ও ১৫ হাজার মানুষের দায়িত্ব নিয়েছেন। ধন্যবাদ তৌহিদ আফ্রিদি ভাইকে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য ।

 

শুধুমাত্র ইউটিউবার না বাংলাদেশ চলচিত্র নির্মাতারা সহ ইন্ডাস্ট্রির অনেকে অনেক অনুদান দিচ্ছে । মনোয়ার হোসেন ডিপজল ভাই ১০ ট্রাক খাবার পাঠিয়েছেন, অনন্ত জলিল ভাই তার ১০০ কোটি টাকা বাজেটের মুভি থেকে যা ইনকাম হবে তা সিলেটের সুনামগঞ্জের হাওরের মানুষদের জন্য দিয়ে দিবেন৷ তারা সবসময় মানুষের পাশে এভাবে দাড়িয়ে একটা দৃষ্টান্ত তৈরি করেছেন। বর্তমানে তারাই সাধারণ মানুষের মনে রিয়েল হিরো।

 

যারা বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষদের পাশে দাড়িয়ে মানবতার ফেরিওয়ালার মতো কাজ করে যাচ্ছে তাদের সবাই কে জানাই সেলুট।

 

যারা সাহায্য করতে চান কিন্তু যেতে পারছেন না তারা তাদের কাছে আপনার সামর্থ্য অনুযায়ী টাকা পাঠিয়ে দিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষদের সাহায্য করতে পারেন৷

তাদের ফেইসবুক পোস্টের মধ্যে তাদের টাকা পাঠানোর বিকাশ, রকেট, নগদ, ব্যাংক একাউন্টের নাম্বার দেওয়া আছে। তাদের মাধ্যমে আপনি সাহায্য করতে পারবেন৷

 

সবাই দোয়া করবেন সিলেটবাসী সহ বন্যা কবলিত মানুষের জন্য এবং যারা তাদের পাশে দাড়িয়েছেন তাদের জন্য।

svg171

Leave a reply